আজ || বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম :
  হেমনগর জমিদারের একাল-সেকাল’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন       গোপালপুরে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ       গোপালপুরে পটগান ও নাটক প্রদর্শনী       গোপালপুর হাসপাতালে মুক্তিযোদ্ধারা বিনামূল্যের চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত       গোপালপুরে সাংবাদিকদের সাথে ওসির মতবিনিময়       গোপালপুরের লক্ষীপুর চাকুরীজীবী পরিষদ কর্তৃক শীতবস্ত্র বিতরণ       গোপালপুরে শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে সুয়েটার উপহার       গোপালপুরে স্বামীর হাতে দুই সন্তানের জননী খুন       গোপালপুরে দুই বিঘা জমির কাঁচা সরিষা ট্রাক্টর দিয়ে মাড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ       গোপালপুরে গুদামের শার্টার ভেঙ্গে সার চুরি, ১০ বস্তা ইউরিয়া সারসহ আটক ১    
 


শেখ জামাল ও মুক্তিযোদ্ধা সেমিফাইনালে

গ্রামীণফোন ফেডারেশন কাপের তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে আবাহনীকে হারিয়ে শীর্ষ চারে জায়গা করে নিয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড মাইক ওটোজারেরির জোড়া গোলে প্রতিযোগিতার বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা ২-১ গোলে হারিয়েছে আকাশি-নীলদের।

গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দুই দলের লড়াইয়ে শুরুতে মাঝ মাঠেই বল ঘোরাঘুরি করেছে। ২৮ মিনিটে প্রথম গোলের সুযোগ তৈরি করে শেখ জামাল। ২৫ গজ দূর থেকে মিডফিল্ডার শরীফুলের প্রচন্ড শট ডানপোস্ট ঘেষে বাইরে চলে যায়। তিনই মিনিট পরই গোল পেয়ে যায় জামাল। মাঝমাঠ থেকে নাইজেরিয়ান ওকেমেরির লব থেকে সানডে মাথা ঠুকে বাড়িয়ে দেন স্বদেশি মাইক ওটোজারেরির উদ্দেশ্যে। সুযোগ নষ্ট করেননি এই ফরোয়ার্ড। ডিফেন্ডার সুজনকে পরাস্ত করে প্লেসিংয়ে বল জালে জড়ান তিনি। বিরতির আগে আবাহনী একমাত্র সুযোগটি তৈরি করেছিলো ৩৭ মিনিটে। কিন্তু বঙের বামপ্রান্ত থেকে ঘানার তুয়াম ফ্রাঙ্কের শট সহজেই গ্লাভসে নেন শেখ জামালের গোলরক্ষক মাকসুদুর রহমান মোস্তাক। খবর বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বিরতির পর মুহুর্মুহু আক্রমণে আবাহনীর রক্ষণভাগ তছনছ করে শেখ জামালের বিদেশি স্ট্রাইকাররা। ৫৪ মিনিটে বঙ থেকে সানডের নেওয়া শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

তবে ছয় মিনিট পরই ব্যবধান ২-০ তে উন্নীত করেন জামালের ওটোজেরারি। ৮২ মিনিটে আবাহনীর পক্ষে একটি গোল পরিশোধ করেন বদলি খেলোয়াড় তৌহিদুল আলম। ঘানাইয়ান আউদু ইব্রাহিমের পোস্ট লক্ষ্য করে জোরালো ফ্রি কিকটি গ্লাভসে ধরে রাখতে ব্যর্থ হন গোলরক্ষক মোস্তাক। পোস্টের কাছেই দাঁড়ানো তৌহিদ টোকা দিয়ে বল জালে জড়ান (২-১)। বাকি সময় ব্যবধানে হেরফের ঘটাতে পারেনি শেখ জামাল।

এ নিয়ে ফেডারেশন কাপে টানা দ্বিতীয়বারের মতো কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে ঝরে পড়েছে আবাহনী। ধানমন্ডির দুই অভিজাত দলের লড়াইয়ে আগের বার কোয়ার্টার ফাইনালে শেখ জামালের কাছে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছিলো চারবারের লিগ চ্যাম্পিয়নরা।

ম্যাচ শেষে আবাহনীর কোচ অমলেশ সেন বলেন, ‘দুই বিদেশি স্ট্রাইকারই জিতিয়েছে শেখ জামালকে। ওদের গতির সঙ্গে আমার খেলোয়াড়রা কুলিয়ে উঠতে পারেনি। আর আমার দলের বিদেশিরা ৩-৪ দিন আগে আসায় এখনো ফিটনেস ফিরে পায়নি। আমাদের ডিফেন্সও ভালো করতে পারেনি। একমাত্র ফ্রাঙ্ক ছাড়া দলের কারোরই পারফরমেন্স সন্তোষজনক ছিলো না।’

ব্রাদার্সকে -মুক্তিযোদ্ধা

এদিকে  শেষ দল হিসেবে সেমিফাইনালে উঠেছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে চতুর্থ ও শেষ কোয়ার্টার ফাইনালে তারা ২-০ গোলে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে হারিয়েছে। খবর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

আগামী শনিবার দ্বিতীয় সেমিফাইনালে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের মুখোমুখি হবে মুক্তিযোদ্ধা। শুক্রবার প্রথম সেমিফাইনালে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডের প্রতিপক্ষ শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র।

ষষ্ট মিনিটেই এগিয়ে যায় মুক্তিযোদ্ধা। শ্যামল আহমদ রনির ক্রস থেকে প্ল্লেসিং শটে গোল করেন মোহাম্মদ ইউসুফ।

ইউসুফের ক্রসেই ব্রাজিলীয় স্ট্রাইকার থিয়াগো সিলভা জয় নিশ্চিত করেন মুক্তিযোদ্ধার।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!