আজ || বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম :
  গোপালপুরে কোটা বিরোধীদের বিপক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিবাদ       গোপালপুর প্রেসক্লাবে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময়       গোপালপুরে শতাধিক নিষিদ্ধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস       গোপালপুরে বর্নাত্যদের জন্য ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প       গোপালপুরে বন্যায় পানীয় জলের সংকট, তবে ক্ষতিগ্রস্তরা পাচ্ছে পর্যাপ্ত ত্রাণ       গোপালপুরে ভূয়া নামজারি ও জাল খতিয়ান তৈরি চক্রের দুই সদস্য আটক       টাঙ্গাইল জেলা সমিতি ঢাকা’র নবনির্বাচিত সভাপতি ইব্রাহীম, সম্পাদক হিরণ       গোপালপুরে বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণ       গোপালপুরে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালন       গোপালপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহে কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ    
 


একদিন পর সচল বেনাপোল-পেট্রাপোল স্থলবন্দর

Benapole Import-Export Open

একদিন বন্ধ থাকার পর রোববার সকাল থেকে আবার সচল হয়েছে দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোল। সকাল ১০টা থেকে এ বন্দর দিয়ে দু’দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়। বন্দরে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এলেও চেকপোস্ট থেকে বন্দর এলাকা জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে ভয়াবহ যানজট। এতে দুর্ভোগে পড়েছে পাসপোর্টধারী যাত্রী ও পণ্যবাহী যানবাহন।
বেনাপোল চেকপোস্টে কর্তব্যরত কাস্টমস কার্গো মাখার সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা সাজেদুর রহমান জানান, সকাল ১০টা থেকে দু’দেশের মধ্যে পুনরায় আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়েছে। ভারত থেকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (বেলা ১২টা)  শতাধিক পণ্যবোঝাই  ট্রাক বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করেছে। এছাড়া ভারতে রপ্তানি হয়েছে ৫০ ট্রাক পণ্য। এ পথে প্রতিদিন ভারত থেকে তিনশ’ থেকে চারশ’ ট্রাক পণ্য আমদানি হয় এবং ভারতে রপ্তানি হয় দেড়শ’ থেকে দুইশ’ ট্রাক পণ্য।
শনিবার ভারতে প্রজাতন্ত্র দিবসের সরকারি ছুটির কারণে দু’দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকে। একদিন বন্ধের কারণে উভয় বন্দরে আটকা পড়ে শত শত পণ্যবাহী ট্রাক।
একদিন বন্ধ থাকার পর আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু হওয়ায় বেনাপোল বন্দরে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এলেও চেকপোস্ট থেকে বন্দর এলাকা জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে ভয়াবহ যানজট। এ কারণে যানবাহন চলাচলসহ পাসপোর্টযাত্রীদের যাতায়াতে মারাত্মক দুর্ভোগের মধ্যে পড়তে হচ্ছে। যানজটের কবলে পড়ে ব্যাহত হচ্ছে দু‘দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য।
বন্দরের পরিচালক (ট্রাফিক) আব্দুল আউয়াল হাওলাদার জানান, একদিন বন্ধ থাকায় কিছুটা পণ্যজট দেখা দিয়েছে। আমদানি করা পণ্যবোঝাই ট্রাকগুলো সরাসরি বন্দরের ট্রাক টার্মিনালে রাখা হচ্ছে। পরে এগুলো বন্দরের শেডের মধ্যে আনলোডের জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। বন্দর থেকেও পর্যাপ্ত মালামাল বাংলাদেশী ট্রাকে লোড হচ্ছে। বন্দরের সব কর্মকর্তাদের দ্রুত কার্য সম্পন্নের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!