আজ || শুক্রবার, ১৪ Jun ২০২৪
শিরোনাম :
  গোপালপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহে কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ       হেমনগরে বর্ধিত সভায় দোয়াত কলম প্রতীকের কর্মী-সমর্থকদের ঢল       রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ডিজাইনকৃত পোশাক নিয়ে ফ্যাশন প্রদ‍‍র্শনী       গোপালপুরে দারোগার মাথা ফাটানোর ঘটনায় ১৬ জনকে জেলহাজতে প্রেরণ       গোপালপুরে দারোগার মাথা ফাটিয়েছে সন্ত্রাসীরা; গ্রেফতার ১০       গোপালপুরে প্রধানমন্ত্রীর ফেয়ার প্রাইজের চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগ       গোপালপুরে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোমেনের পদত্যাগ       উত্তর টাঙ্গাইল নূরানী মাদরাসার বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান       গোপালপুরে জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস উদযাপন       গোপালপুরে নানা আয়োজনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত    
 


আবুলকে ‘বলি’ দিলেই পদ্মাসেতু হবে : জয়নুল আবদিন ফারুক

সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনকে ‘বলি’ দিলেই পদ্মাসেতু হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক। রোববার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দল আয়োজিত সাংসদ গিয়াস উদ্দিনকে গ্রেফতার ও ফাঁসি এবং খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা চার্জশিট প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

পদ্মাসেতু করতে কাউকে বলি বা কোরবানি দিতে হবে বলে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের করা মন্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত করে ফারুক বলেন, পদ্মাসেতু প্রকল্পে বিশ্বব্যাংককে ফেরাতে হলে একমাত্র আবুল হোসেনকে বলি দিতে হবে। এটা আপনার নেত্রীকে বোঝান। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্য ফারুক বলেন, আপনার পিতার খুনিদের দীর্ঘদিন পর আইনের আওতায় এনে ফাঁসি দিতে পারলে জিয়ার আত্মস্বীকৃত খুনি গিয়াস উদ্দিনকে গ্রেফতার করে বিচারের সম্মুখীন করুন। তা না হলে আগামীতে বিএনপি ক্ষমতায় গিয়ে গিয়াস উদ্দিনসহ আপনার সরকারের অনেককেই বিচারের সম্মুখীন করা হবে। আগামী ২৭ জানুয়ারি সংসদে শীতকালীন অধিবেশেনে তত্ত্বাবধায়ক সরকার পদ্ধতি প্রবর্তনের বিল আনার দাবি জানান তিনি। তিনি বলেন, তত্ত্বাবাধয়ক সরকার ফিরিয়ে আনা এবং খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা ও চার্জশিট প্রত্যাহার করার নিশ্চয়তা দিলেই আমরা কেবল সংসদে যেতে রাজি। তা না হলে আন্দোলন নিয়ে রাজপথে থাকবো। প্রতীকী অবস্থান থেকে সরকারবিরোধী কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার তাগিদ দেওয়া হলে ফারুক বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ইস্যুতে বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোট অবশ্যই কর্মসূচি দেবে । পুলিশের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমাদের কর্মসূচি গণতান্ত্রিক। তাই আমাদের কর্মসূচিতে বাধা দেবেন না। আমাদের কর্মসূচি আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে। রাজপথে বিএনপি আওয়ামী লীগের সঙ্গে লড়াই করতে চায় পুলিশের সঙ্গে নয় দাবি করে বিএনপির এই নেতা বলেন, পিপার স্প্রে ব্যবহার করে আন্দোলন দমানো যাবে না।

সংগঠনের সভাপতি মেজর (অব.) মেহবুব রহমানের সভাপতিত্বে ও তোফায়েল আহমেদ কায়সারের সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সহ স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক এ.বি.এম মোশাররফ হোসেন, স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের মো. রহমতউল্লাহ, সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী এড. আবেদ রাজা, মুক্তিযোদ্ধা দলের সিনিয়র সহ সভাপত্ আলহাজ্ব আবুল হোসেন,  যুবদল সহ সভাপতি এ.টি.এম আব্দুল বারী ড্যানী, ফারুক আহমেদ, স্বদেশ মঞ্চের সভাপতি মামনুর রশিদ খান, এস.এম মিজানুর রহমান, সৈয়দ মোজাম্মেল হোসেন শাহীন, কালাম ফয়েজী, মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা, হেদায়েত আলী অরুন, রমিজউদ্দিন রুমী, মিয়া মো. আনোয়ার, ছাত্রদল নেতা সেলিনা সুলতানা নিশীতা, শাহিনুর সাগর প্রমুখ।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!