আজ || বুধবার, ২২ মে ২০২৪
শিরোনাম :
  রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ডিজাইনকৃত পোশাক নিয়ে ফ্যাশন প্রদ‍‍র্শনী       গোপালপুরে দারোগার মাথা ফাটানোর ঘটনায় ১৬ জনকে জেলহাজতে প্রেরণ       গোপালপুরে দারোগার মাথা ফাটিয়েছে সন্ত্রাসীরা; গ্রেফতার ১০       গোপালপুরে প্রধানমন্ত্রীর ফেয়ার প্রাইজের চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগ       গোপালপুরে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোমেনের পদত্যাগ       উত্তর টাঙ্গাইল নূরানী মাদরাসার বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান       গোপালপুরে জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস উদযাপন       গোপালপুরে নানা আয়োজনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত       গোপালপুরে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় শিশু ও নারী নিহত       গোপালপুরে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে নগদ অর্থ প্রদান    
 


তারল্য নয় পুঁজিবাজারে অন্য সমস্যা আছে

পুঁজিবাজারে তারল্য নয়, অন্য সমস্যা আছে। তারল্য সংকট থাকলে ব্যাংকগুলো তা পূরণ করতে পারত; কিন্তু আসল সমস্যা অন্য জায়গায়। আজ বুধবার দুপুরে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী সম্মিলিত জাতীয় ঐক্য ১২ দফা দাবি পেশকালে এসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশের (এবিবি) চেয়ারম্যান মো. নূরুল আমীন এ কথা বলেন।

নূরুল আমীন বলেন, দেশে এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি যে পুঁজিবাজারে লেনদেন এতো কমে যাবে। তিনি বলেন, পুঁজিবাজার ধসের কারণে শুধু ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরাই ক্ষতিগ্রস্ত হননি বরং সংশ্লিষ্ট সবাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে নূরুল আমীন বলেন, পুঁজিবাজারে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী হচ্ছে মিউচ্যুয়াল ফান্ড এবং মার্চেন্ট ব্যাংক, বাণিজ্যিক ব্যাংক নয়। তবে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো পুঁজিবাজারের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট।

এবিবি কি পুঁজিবাজার রক্ষায় আশ্বাসই দিয়ে যাবে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে নূরুল আমীন বলেন, পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ ব্যাংকগুলোর নিজস্ব ব্যাপার। আশ্বাস দেয়ার পর প্রত্যেকটি ব্যাংকের পোর্টফলিও যাচাই করলে বোঝা যাবে কে কি করেছে।

নূরুল আমীন আরো বলেন, বাজারের বিদ্যমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন কিংবা ব্যাংকগুলোর নিয়ন্ত্রক সংস্থা কেন্দ্রীয় ব্যাংক যদি ডাকে তবে এবিবি তাতে সাড়া দেবে।
বাজার রক্ষায় আইসিবি কর্তৃক গঠিত বাংলাদেশ ফান্ডের ব্যাপারে স্বপ্রণোদিত হয়ে নূরুল আমীন বলেন, বাংলাদেশ ফান্ডের অর্থ ইউটিলাইজ হয়েছে কিনা তা যাচাই করে দেখতে হবে।

এবিবি সভাপতি জানান, আগামী ১৮ জানুয়ারি মনিটারি পলিসি নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে বৈঠকে বিনিয়োগকারীদের দাবিগুলো উত্থাপন করা হবে।

এবিবি’র চেয়ারম্যানের সঙ্গে এনসিসি ব্যাংকের কার্যালয়ে সাক্ষাতকালে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী সম্মিলিত জাতীয় ঐক্যের আহবায়ক রুহুল আমিন এবং সদস্য সচিব আ ন ম আতাউল্লাহ নাঈম স্বাক্ষরিত স্মারকলিপিতে যে দাবিগুলো তুলে ধরা হয় তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- ব্যাংক কোম্পানি আইন সংশোধন না করে পূর্বের আইনানুযায়ী মোট দায়ের ১০ শতাংশ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের শর্ত বহাল রাখা, আমানতের সুদের হার ৮ শতাংশ নির্ধারণ করা, বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে এসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির সনদ প্রদান করা, ব্যাংকগুলোকে বাজারে ফিরিয়ে আনতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের উদ্যোগ গ্রহণ এবং আসন্ন মূদ্রানীতি বাজারবান্ধব করা ইত্যাদি।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!