আজ || বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম :
  গোপালপুরে কোটা বিরোধীদের বিপক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিবাদ       গোপালপুর প্রেসক্লাবে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময়       গোপালপুরে শতাধিক নিষিদ্ধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস       গোপালপুরে বর্নাত্যদের জন্য ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প       গোপালপুরে বন্যায় পানীয় জলের সংকট, তবে ক্ষতিগ্রস্তরা পাচ্ছে পর্যাপ্ত ত্রাণ       গোপালপুরে ভূয়া নামজারি ও জাল খতিয়ান তৈরি চক্রের দুই সদস্য আটক       টাঙ্গাইল জেলা সমিতি ঢাকা’র নবনির্বাচিত সভাপতি ইব্রাহীম, সম্পাদক হিরণ       গোপালপুরে বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণ       গোপালপুরে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালন       গোপালপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহে কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ    
 


বিপিএলে খেলতে আসবে পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা খেলবে না এমন একটা গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। এই গুঞ্জনে ক্রিকেট বোর্ড কর্মকর্তারাও কিছুটা উদ্বিগ্ন। কিন্তু সোমবার রাতেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সফর বাতিলের সঙ্গে বিপিএলে খেলোয়াড় ছাড়ার কোনো সম্পর্ক নেই। এই দুটোকে একসঙ্গে করা হাস্যকর বলেও লিখেছে পিসিবি। পিসিবি তাদের বিজ্ঞপ্তিতে পরিষ্কার করেছে,‘বিপিএলে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ছাড়পত্র দেওয়ার বিষয়টি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফরের সঙ্গে মেলানো হাস্যকর দেখাবে। তবে ২০১৩ সালে বিপিএলে খেলার ছাড়পত্র দেওয়ার আগে খেলোয়াড়দের প্রতিশ্রুতি এবং তাদের সম্পৃক্ততা যাচাই করে দেখতে হবে আমাদের। বিপিএল ইস্যুতে পিসিবি সরাসরি কিছু না বললেও প্রচ্ছন্ন হুমকি দিয়ে রেখেছে। শেষপর্যন্ত হয়তো তারা খেলোয়াড় আটকাবে না কিন্তু তাদের চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটারদের ছাড় নাও দিতে পারে।

এদিকে বিপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোও তাদের পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের সঙ্গে ফোনে কথা বলে নিশ্চিত হয়েছে তারা খেলবেন। দুরন্ত রাজশাহীর মালিক মুশফিকুর রহমান মোহন সাংবাদিকদের বলেছেন,‘পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা খেলবে না এমন খবর হওয়ার পর স্পন্সররা উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। কিন্তু সকালে আমার সঙ্গে পাকিস্তনের ক্রিকেটারদের কথা হয়েছে তারা বিপিএলে খেলবে এই নিশ্চয়তা দিয়েছে। প্রমাণ স্বরূপ কাল আমি আব্দুর রাজ্জাককে ঢাকায় নিয়ে আসবো।

বিপিএল প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়ন ঢাকা প্ল্যাডিয়েটরসের মালিক সেলিম চৌধুরীও জানালেন শহীদ আফ্রিদির সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে এবং তিনি খেলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সেলিম বলেন,‘আমি আফ্রিদির সঙ্গে কথা বলেছি। সে বলেছে খেলতে আসবে, কোনো সমস্যা হবে না। আমার মনে হয় জাতীয় দলে যারা থাকবে তাদেরকে হয়তো ছাড়পত্র দেবে না পিসিবি। কিন্তু অন্যদের আটকাবে না।’ বিসিবি সভাপতিরও বিশ্বাস পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের বিপিএলে ছাড়পত্র দিবে পিসিবি,‘আমি এখনও আশা করি পাকিস্তানের যে কয়জন খেলোয়াড় বিপিএলে নিলামে উঠেছে তারা বিপিএলে খেলবে।’

যদিও বাংলাদেশ দলের পাকিস্তান সফর দ্বিতীয়বারের মতো বাতিল হওয়ায় পিসিবি চেয়ারম্যান জাকা আশরাফ সোমবার রাতে ভারতের কিছু সংবাদ মাধ্যমের কাছে তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। বিসিবির প্রতিশ্রুতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। এমনকি পক্ষে হুমকি দিলেও বিপিএলে খেলোয়াড় না পাঠানোর বিষয়ে কোনো বক্তব্য রাখেননি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে খবর হওয়ার অনেক পরে পিসিবি থেকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। বাংলাদেশের ক্রিকেট উন্নয়নে পাকিস্তানি ক্রিকেটার এবং দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের যথেষ্ট অবদান আছে বলেও স্বীকার করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বলেন,‘পাকিস্তানকে আমরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছি আমরা খেলতে যাব। আমি বার বারই বলে আসছি প্রতিশ্রুতি রক্ষা করা উচিত। তবে এই মুহূর্তে পাকিস্তানে যাওয়া সমীচীন হবে না। তার মানে এই নয় আমরা পাকিস্তানে যাব না। পরিস্থিতির উন্নতি হলে এবং সেরকম পরিবেশ সৃষ্টি হলে আমরা অবশ্যই খেলতে যাব। আমি বিশ্বাস করি বাংলাদেশের ক্রিকেটে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের বেশ অবদান আছে। বহু খেলোয়াড় খেলে গেছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ এবং বিপিএলে। তাদের খেলোয়াড় এবং পিসিবির সঙ্গে আমাদের যে সম্পর্ক, আমার ধারণা এবং বিশ্বাস উনারা যদি এই ধরনের (বিপিএলে খেলোয়াড় না দেওয়া) কোনো সিদ্ধান্ত নিয়েও থাকেন তা পুনর্বিবেচনা করবেন। এবং ক্রিকেটাঙ্গনে আমাদের বিসিবির সঙ্গে পিসিবির যে সম্পর্ক আছে সামনেও বজায় থাকবে। এই আশ্বাস এবং বিশ্বাস নিয়ে আমি এখনও বসে আছি।
বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহা বলেছেন,‘বিপিএল পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের জন্য অনেক বড় একটা উপার্জনের জায়গা। এখানে খেললে অনেক টাকা পাবে। তারা হয়তো ক্ষোভ থেকে কিছু একটা বলেছে। কিন্তু আমার বিশ্বাস বিপিএলে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা খেলবে। যদি তারা নাই আসে তাহলে নিলামে বিক্রি হয়নি এমন খেলোয়াড়দের ভেতর থেকে নেওয়া হবে।’
বিপিএলের খেলা দেখাবে ইএসপিএন : বিপিএলের দ্বিতীয় আসরের খেলা দেখাবে ইএসপিএন, পাকিস্তানের জিও টিভি, আল জাজিরা এবং আমেরিকার একটি চ্যানেল।’ বাংলাদেশ টেলিভিশনও বিপিএলের ম্যাচগুলো দেখাতে পারে।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!