আজ || বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম :
  হেমনগর জমিদারের একাল-সেকাল’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন       গোপালপুরে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ       গোপালপুরে পটগান ও নাটক প্রদর্শনী       গোপালপুর হাসপাতালে মুক্তিযোদ্ধারা বিনামূল্যের চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত       গোপালপুরে সাংবাদিকদের সাথে ওসির মতবিনিময়       গোপালপুরের লক্ষীপুর চাকুরীজীবী পরিষদ কর্তৃক শীতবস্ত্র বিতরণ       গোপালপুরে শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে সুয়েটার উপহার       গোপালপুরে স্বামীর হাতে দুই সন্তানের জননী খুন       গোপালপুরে দুই বিঘা জমির কাঁচা সরিষা ট্রাক্টর দিয়ে মাড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ       গোপালপুরে গুদামের শার্টার ভেঙ্গে সার চুরি, ১০ বস্তা ইউরিয়া সারসহ আটক ১    
 


গোপালপুরে ট্রাকচাপায় কলেজ ছাত্র নিহতের ঘটনায় সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন

কে এম মিঠু, গোপালপুর :
টাঙ্গাইলের গোপালপুরে ট্রাক চাপায় এক কলেজ ছাত্র নিহতের প্রতিবাদে সর্বস্তরের জনতা পৌরশহরের প্রধান সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। তারা সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে এবং বাঁশের বেড়া দিয়ে টানা তিন ঘন্টা যানচলাচল বন্ধ রাখে।

জানা যায়, বাস ও ট্রাক মালিক সমিতি  চারশতাধিক বাস ও ট্রাক নির্দিষ্ট স্ট্যান্ড না রেখে নন্দনপুর থেকে সমেশপুর পেট্রোল পাম্প পর্যন্ত প্রধান সড়কের পাশে এলোপাথাড়ি রেখে দেয়। সরু সড়কের অর্ধেক জায়গা জুড়ে এসব বাসট্রাক রাখায় বিপরিত দিক থেকে কোন বড় যানবাহন এলে সাধারণ পথচারিরা পর্যন্ত হাটাচলা করতে পারেনা। গত রবিবার দুপুরে কলেজ ছাত্র মেহেদী হাসান ট্রাক চাপায় নিহত হয়। এ নিয়ে ৬ মাসে ৭জন নিহত হলো। আহত হয়েছে শতাধিক। মেহেদী হাসান নিহতের ঘটনায় এলাকায় অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে।  আজ সোমবার সকাল ১০টায় গোপালপুর সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে আসে। তাদের সাথে সকল পেশা ও শ্রেণির মানুষ যোগ দেয়। তারা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। তারা সড়কে বাসট্রাক রেখে মানুষ হত্যার দায়ে মালিকদের শাস্তির দাবি জানায়।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র রকিবুল হক ছানা, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক শফিকুল ইসলাম শফিক, পৌর কাউন্সিলর নাসিরুদ্দীন শিকদার, মইনউদ্দীন বাবু, হিরা শেখ, যুবলীগ নেতা জিহাদ হাসান, ছাত্রলীগ নেতা আলমগীর রানা, ইকবাল হোসাইন প্রমুখ।

গোপালপুর সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ মানিকুজ্জামান অভিযোগ করেন, প্রধান সড়কের পাশেই গোপালপুর সরকারি কলেজ, রাধারাণী গার্লস হাইস্কুল এবং নন্দনপুর বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় অবস্থিত। এ তিনটি প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৫ হাজার শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে।  প্রতিষ্ঠানের গেটর সামনে শতশত ট্রাকবাস যমদূতের মতো দাড় করিয়ে রাখা হয়। ফলে শিক্ষার্থীরা নিরাপদে কলেজে আসাযাওয়া করতে পারেনা। প্রায়ই দুর্ঘটনায় তাদের কেউ না কেউ হতাহত হয়। চোখর সামনে প্রায় প্রতিদিনই হতাহতের ঘটনা দেখতে দেখতে ক্লান্ত হয়ে গেছি। প্রশাসনের নিকট বহুবার অভিযোগ দেয়া হয়েছে। কিন্তু কোনই প্রতিকার মিলছেনা।

স্কুল শিক্ষক শফিকুল ইসলাম তালুকদার  জানান, এ যেন মগের মুল্লুক। কারো কথাই বাসট্রাক মালিকেরা শুনছেননা। প্রতিদিনই হতাহতের ঘটনা ঘটছে। কেউ নিহত হলে কয়েকদিন যানবাহন নির্দিষ্ট বাসষ্ট্যান্ডে নিয়ে রাখে। তারপর আবার  সড়ক দখল করে আগের মতোই যানবাহন রেখে দেয়।

ওসি মোশারফ হোসেন এবং গোপালপুর সার্কেলের এএসপি মোনাদির ইসলাম চৌধুরী জানান, বিষয়টি দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দিলে বিক্ষোভকারীরা সড়ক ছেড়ে দেয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসফিয়া সিরাত জানান, মালিকেরা যাতে প্রধান সড়কের উপর বাসট্রাক না রাখেন এবং ভবিষতে যাতে এ ধরণের মর্মান্তিক ঘটনা না ঘটে এজন্য আগামীকাল উপজেলা পরিষদ হলরুমে সকল পেশা ও শ্রেণির প্রতিনিধিদের নিয়ে এক জরুরী সভা ডাকা হয়েছে।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!