আজ || বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম :
  গোপালপুরে কোটা বিরোধীদের বিপক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিবাদ       গোপালপুর প্রেসক্লাবে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময়       গোপালপুরে শতাধিক নিষিদ্ধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস       গোপালপুরে বর্নাত্যদের জন্য ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প       গোপালপুরে বন্যায় পানীয় জলের সংকট, তবে ক্ষতিগ্রস্তরা পাচ্ছে পর্যাপ্ত ত্রাণ       গোপালপুরে ভূয়া নামজারি ও জাল খতিয়ান তৈরি চক্রের দুই সদস্য আটক       টাঙ্গাইল জেলা সমিতি ঢাকা’র নবনির্বাচিত সভাপতি ইব্রাহীম, সম্পাদক হিরণ       গোপালপুরে বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণ       গোপালপুরে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালন       গোপালপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহে কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ    
 


বাঁশের সাঁকো বিদায় নিলো, সেই সেঁতুতে সংযোগ সড়ক নির্মাণ হলো

কে এম মিঠু, গোপালপুর :
অবশেষে টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার ঝাওয়াইল ইউনিয়নের ভাদাই গ্রামের মৃতপ্রায় লৌহজং নদীর উপর নির্মিত সেঁতুর পশ্চিমপাড়ে সংযোগ রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে। ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে ব্রীজে উঠার বাঁশের সাঁকো।

গোপালপুর উপজেলার ঝাওয়াইল ইউনিয়ন এবং সরিষাবাড়ী উপজেলার পিংনা ইউনিয়নের দশ গ্রামের মানুষ হেটে বা যানবাহন নিয়ে এখন সেঁতু পারাপার হচ্ছেন।

ঝাওয়াইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম তালুকদার জানান, আশপাশের ৮ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ নিরসনে গোপালপুর উপজেলা পরিষদ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের অর্থায়নে প্রায় কোটি টাকা ব্যয় ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে নির্মাণ করেন এ সেঁতু। চারশ গজ দীর্ঘ নদীর মাঝখানে ৬০ ফিট দীর্ঘ সেঁতু নিমার্ণের পর উভয় পাড়ে নতুন সংযোগ রাস্তা করার কথা ছিল। প্রায় ৮টন কাবিটার চালের বিনিময়ে সেঁতুর টাঙ্গাইল অংশে মাটি ভরাট করে সংযোগ রাস্তা করা হয়। কিন্তু ব্রীজের জামালপুর অংশে মাটি ভরাট হয়নি, রাস্তাও হয়নি।

গোপালপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আল মাসুম জানান, টাঙ্গাইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ছোট মনিরের ঐকান্তিক সহযোগিতায় গোপালপুর ও সরিষাবাড়ী উপজেলা পরিষদ মিলিয়ে প্রায় দশ লক্ষ টাকা ব্যয়ে সংযোগ রাস্তাটা করা হয়েছে।

সরিষাবাড়ী উপজেলার পিংনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোতাহের হোসেন জানান, রাস্তা নির্মাণের ফলে দশ গ্রামের মানুষের মুখ হাসি ফুঁটেছে। সামনে রাস্তাটি যাতে পাকা হয় সে ব্যাপারে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

গোপালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ মল্লিক জানান, রাস্তা নির্মাণের ফলে সেঁতুটি এখন কাজ আসছে।এলাকাবাসির ভোগান্তি দূর হয়েছে।

গত ৩ মে দৈনিক ইত্তেফাক ও গোপালপুর বার্তায় এ সেঁতু নিয়ে একটি সচিত্র খবর ছাপা হয়।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!