আজ || বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম :
  হেমনগর জমিদারের একাল-সেকাল’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন       গোপালপুরে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ       গোপালপুরে পটগান ও নাটক প্রদর্শনী       গোপালপুর হাসপাতালে মুক্তিযোদ্ধারা বিনামূল্যের চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত       গোপালপুরে সাংবাদিকদের সাথে ওসির মতবিনিময়       গোপালপুরের লক্ষীপুর চাকুরীজীবী পরিষদ কর্তৃক শীতবস্ত্র বিতরণ       গোপালপুরে শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে সুয়েটার উপহার       গোপালপুরে স্বামীর হাতে দুই সন্তানের জননী খুন       গোপালপুরে দুই বিঘা জমির কাঁচা সরিষা ট্রাক্টর দিয়ে মাড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ       গোপালপুরে গুদামের শার্টার ভেঙ্গে সার চুরি, ১০ বস্তা ইউরিয়া সারসহ আটক ১    
 


বাঁশের সাঁকো বিদায় নিলো, সেই সেঁতুতে সংযোগ সড়ক নির্মাণ হলো

কে এম মিঠু, গোপালপুর :
অবশেষে টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার ঝাওয়াইল ইউনিয়নের ভাদাই গ্রামের মৃতপ্রায় লৌহজং নদীর উপর নির্মিত সেঁতুর পশ্চিমপাড়ে সংযোগ রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে। ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে ব্রীজে উঠার বাঁশের সাঁকো।

গোপালপুর উপজেলার ঝাওয়াইল ইউনিয়ন এবং সরিষাবাড়ী উপজেলার পিংনা ইউনিয়নের দশ গ্রামের মানুষ হেটে বা যানবাহন নিয়ে এখন সেঁতু পারাপার হচ্ছেন।

ঝাওয়াইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম তালুকদার জানান, আশপাশের ৮ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ নিরসনে গোপালপুর উপজেলা পরিষদ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের অর্থায়নে প্রায় কোটি টাকা ব্যয় ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে নির্মাণ করেন এ সেঁতু। চারশ গজ দীর্ঘ নদীর মাঝখানে ৬০ ফিট দীর্ঘ সেঁতু নিমার্ণের পর উভয় পাড়ে নতুন সংযোগ রাস্তা করার কথা ছিল। প্রায় ৮টন কাবিটার চালের বিনিময়ে সেঁতুর টাঙ্গাইল অংশে মাটি ভরাট করে সংযোগ রাস্তা করা হয়। কিন্তু ব্রীজের জামালপুর অংশে মাটি ভরাট হয়নি, রাস্তাও হয়নি।

গোপালপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আল মাসুম জানান, টাঙ্গাইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ছোট মনিরের ঐকান্তিক সহযোগিতায় গোপালপুর ও সরিষাবাড়ী উপজেলা পরিষদ মিলিয়ে প্রায় দশ লক্ষ টাকা ব্যয়ে সংযোগ রাস্তাটা করা হয়েছে।

সরিষাবাড়ী উপজেলার পিংনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোতাহের হোসেন জানান, রাস্তা নির্মাণের ফলে দশ গ্রামের মানুষের মুখ হাসি ফুঁটেছে। সামনে রাস্তাটি যাতে পাকা হয় সে ব্যাপারে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

গোপালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ মল্লিক জানান, রাস্তা নির্মাণের ফলে সেঁতুটি এখন কাজ আসছে।এলাকাবাসির ভোগান্তি দূর হয়েছে।

গত ৩ মে দৈনিক ইত্তেফাক ও গোপালপুর বার্তায় এ সেঁতু নিয়ে একটি সচিত্র খবর ছাপা হয়।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!