আজ || বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম :
  গোপালপুরে কোটা বিরোধীদের বিপক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিবাদ       গোপালপুর প্রেসক্লাবে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময়       গোপালপুরে শতাধিক নিষিদ্ধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস       গোপালপুরে বর্নাত্যদের জন্য ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প       গোপালপুরে বন্যায় পানীয় জলের সংকট, তবে ক্ষতিগ্রস্তরা পাচ্ছে পর্যাপ্ত ত্রাণ       গোপালপুরে ভূয়া নামজারি ও জাল খতিয়ান তৈরি চক্রের দুই সদস্য আটক       টাঙ্গাইল জেলা সমিতি ঢাকা’র নবনির্বাচিত সভাপতি ইব্রাহীম, সম্পাদক হিরণ       গোপালপুরে বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণ       গোপালপুরে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালন       গোপালপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহে কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ    
 


বিএমবিএ’র প্রস্তাবের আদলে তৈরি হচ্ছে প্রিমিয়াম নির্ধারণ প্রক্রিয়া

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির ক্ষেত্রে নতুন কোম্পানিগুলোর প্রিমিয়াম নির্ধারণে বিদ্যমান জটিলতা নিরসন হতে যাচ্ছে। সম্প্রতি বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স এসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কাছে প্রদত্ত প্রস্তাবের আদলেই নতুন কোম্পানির প্রিমিয়াম নির্ধারণের প্রক্রিয়া তৈরি করছে বিএসইসি। এর আগে প্রিমিয়াম নির্ধারণে কোনো নীতিমালা ছিল না। বিএমবিএ সংশ্লিস্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বিএমবিএ’র প্রস্তাব বাস্তবায়ন করা হলে নতুন কোম্পানির ক্ষেত্রে প্রিমিয়াম নিয়ে বিতর্ক তৈরির সম্ভাবনা কমে যাবে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

শেয়ারবাজারের উন্নয়নে বিএসইসি’র কাছে গত ৬ ডিসেম্বর কয়েকটি প্রস্তাব জমা দেয় বিএমবিএ। প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) আবেদন দ্রুত সম্পন্ন করা, প্রিমিয়াম নির্ধারণের প্রক্রিয়া, পাবলিক ও রাইট ইস্যু রুলস সংশোধনসহ আরো কয়েকটি বিষয় প্রস্তাবে উল্লেখ ছিল।

প্রিমিয়াম নির্ধারণের বিষয়ে প্রস্তাবে বলা হয়েছে, আইপিও প্রক্রিয়া চলাকালীন কোম্পানির শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য এবং আয় ওয়েটেড এভারেজ না করে টাইম ওয়েটেড এভারেজ করা যেতে পারে। এতে কোম্পানির সর্বশেষ ৫ বছরের পরিবর্তে সর্বশেষ ৩ বছরের আর্থিক প্রতিবেদন প্রাধান্য পাবে।

পাশাপাশি কোম্পানির সব শেয়ার নয় বরং লেনদেনযোগ্য শেয়ার অনুযায়ী ডিভিডেন্ডের সঙ্গে শেয়ারপ্রতি আয় সমন্বয় করে ইপিএস দেখাতে হবে।

এছাড়াও ইনভেস্টমেন্ট অ্যাডভাইজার গাইডলাইন, রিসার্চ গাইডলাইন, আইপিও বা রাইট কিংবা ক্যাপিটাল ইস্যু প্রসেসিং এবং মার্জিন লোন রেশিওর বিষয়ে মতামত দিয়েছে বিএমবিএ।

দুই বছর ধরে অনেক কোম্পানির আইপিও জমা পড়ে আছে বিএসইসিতে। অর্থসংকট মেটাতে এসব কোম্পানি বাজারে শেয়ার ছাড়তে চাইলেও কমিশন তা অনুমোদন দিচ্ছে না। এতে ইস্যুয়ার কোম্পানির পক্ষ থেকে মার্চেন্ট ব্যাংকগুলো চাপে রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে ইস্যুয়ার কোম্পানিগুলো অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। বৈঠকে মার্চেন্ট ব্যাংকের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘আইপিওর বিষয়ে আমরা বড় ধরনের সমস্যার মধ্যে আছি। আবেদনের অগ্রগতি সম্পর্কে ইস্যুয়ারদের কিছু জানাতে পারছি না। ইস্যুয়ারদের সম্ভাব্য সময়ের মধ্যে আবেদন গৃহীত না হওয়ায় তারা বিনিয়োগের সুযোগ হারাচ্ছেন।’

এ প্রসঙ্গে বিএমবিএ সভাপতি মোহাম্মদ এ হাফিজ শেয়ারনিউজ২৪ডটকমকে বলেন, গত ৬ ডিসেম্বর আমরা যেসব প্রস্তাব করেছিলাম বিএসইসি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে তা বিবেচনায় নিয়েছে। প্রাইমারী মার্কেট উন্নয়নের জন্য আইপিও প্রক্রিয়ার সময় কমিয়ে আনা, প্রিমিয়াম নির্ধারণের বিষয়ে আমাদের প্রস্তাবের আদলেই কাজ করছে সংস্থাটি। বিএসইসির সঙ্গে এ বিষয়ে সর্বশেষ গত সপ্তাহের আলোচনায় তাই মনে হয়েছে।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!