আজ || বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম :
  হেমনগর জমিদারের একাল-সেকাল’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন       গোপালপুরে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ       গোপালপুরে পটগান ও নাটক প্রদর্শনী       গোপালপুর হাসপাতালে মুক্তিযোদ্ধারা বিনামূল্যের চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত       গোপালপুরে সাংবাদিকদের সাথে ওসির মতবিনিময়       গোপালপুরের লক্ষীপুর চাকুরীজীবী পরিষদ কর্তৃক শীতবস্ত্র বিতরণ       গোপালপুরে শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে সুয়েটার উপহার       গোপালপুরে স্বামীর হাতে দুই সন্তানের জননী খুন       গোপালপুরে দুই বিঘা জমির কাঁচা সরিষা ট্রাক্টর দিয়ে মাড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ       গোপালপুরে গুদামের শার্টার ভেঙ্গে সার চুরি, ১০ বস্তা ইউরিয়া সারসহ আটক ১    
 


শেয়ারবাজারে প্রান্তিক ঋণের পরিমাণ বেড়েছে প্রায় ২৪৭ কোটি টাকা

ঋণের চক্র থেকে বেরিয়ে আসার বিষয়ে তেমন সক্রিয়তা দেখা যাচ্ছে না মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর কর্মকাণ্ডে। পত্রকোষ ব্যবস্থাপনার চেয়ে ঋণ-ব্যবসার সঙ্গেই নিজেদের বেশি সম্পৃক্ত করে রেখেছে প্রতিষ্ঠানগুলো।
অথচ নিবন্ধন শর্ত অনুসারে পত্রকোষ ব্যবস্থাপনা, ইস্যু ব্যবস্থাপনা ও অবলেখনকারী (আন্ডাররাইটার) প্রতিষ্ঠান হিসেবে কর্মকাণ্ড পরিচালনার সুস্পষ্ট বিধান রয়েছে আইনে। আর সরাসরি ঋণ-ব্যবসার বিষয়টি প্রধান না হলেও দেখা যাচ্ছে, মার্চেন্ট ব্যাংকগুলো ঋণ-ব্যবসাকেই প্রধান কাজ হিসেবে বেছে নিয়েছে।
মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর ঋণ-পরিস্থিতির সর্বশেষ পূর্ণাঙ্গ উপাত্ত রয়েছে জুলাই মাস পর্যন্ত। সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (এসইসি) তথ্যানুসারে, জুলাই মাস শেষে এ প্রতিষ্ঠানগুলোর বিতরণ করা ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় পাঁচ হাজার ৫৯২ কোটি টাকায়। ৭৩ হাজার ২৩৮টি গ্রাহক হিসাবের বিপরীতে এ ঋণ বিতরণ করা হয়েছে।
অথচ চলতি বছরের জানুয়ারি শেষে এর পরিমাণ ছিল প্রায় পাঁচ হাজার ৩৪৫ কোটি টাকা। সেই হিসাবে গত ছয় মাসের ব্যবধানে শেয়ারবাজারে প্রান্তিক ঋণের পরিমাণ বেড়েছে প্রায় ২৪৭ কোটি টাকা।
সরাসরি গ্রাহকের হিসাবের বিপরীতে ২৮টি মার্চেন্ট ব্যাংক এ ঋণ বিতরণ করেছে। সম্মিলিতভাবে মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর বিতরণ করা বিপুল পরিমাণ অর্থ অনাদায়ী ঋণে পরিণত হয়ে আছে। সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!