আজ || বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম :
  গোপালপুরে কোটা বিরোধীদের বিপক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিবাদ       গোপালপুর প্রেসক্লাবে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময়       গোপালপুরে শতাধিক নিষিদ্ধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস       গোপালপুরে বর্নাত্যদের জন্য ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প       গোপালপুরে বন্যায় পানীয় জলের সংকট, তবে ক্ষতিগ্রস্তরা পাচ্ছে পর্যাপ্ত ত্রাণ       গোপালপুরে ভূয়া নামজারি ও জাল খতিয়ান তৈরি চক্রের দুই সদস্য আটক       টাঙ্গাইল জেলা সমিতি ঢাকা’র নবনির্বাচিত সভাপতি ইব্রাহীম, সম্পাদক হিরণ       গোপালপুরে বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণ       গোপালপুরে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালন       গোপালপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহে কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ    
 


বাংলাদেশের ভু-খন্ড ব্যবহারের অনুমতি চায় ভারত

ভারতের বাণিজ্য সচিব এস আর রাও সেদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলোতে নিজস্ব পণ্য পরিবহনের সুবিধার্থে বাংলাদেশের ভু-খন্ড ব্যবহারের অনুমতি প্রদানের জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করেছেন। এস আর রাও-এর নেতৃত্বে ঢাকা সফররত ভারতের একটি উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন প্রতিনিধি দল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনির সাথে সাক্ষাতকালে এ অনুরোধ জানায়। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলণ কেন্দ্রে �উন্নয়নের জন্য সহযোগিতা� শীর্ষক প্রতিপাদ্য নিয়ে ৩ থেকে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলমান তিন দিনব্যাপী ভারতীয় প্রদর্শনী উপলক্ষে ভারতের বাণিজ্য সচিব এস আর রাওসহ ভারতীয় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন।

প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হচ্ছেন- ফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান চেম্বার্স অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির (এফআইসিসিআই) সভাপতি, �পিটিসি� গ্র�পের চেয়রম্যান, �বাজোরিয়া গ্র�প অব কম্পানীজ এর সভাপতি, জেমস জুয়েলারি� এর সহসভাপতি এবং রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো এর প্রধান নির্বাহী, স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া�র চেয়ারম্যান প্রমুখ। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি প্রতিনিধি দলকে বাংলাদেশে স্বাগত জানান এবং ব্যবসায়ী প্রতিনিধি সংগঠনের অ্যাপেক্সবডি �এফআইসিসিআই� নেতৃবৃন্দ ঢাকা সফরের পাশাপাশি ভারতীয় প্রদর্শনীতে অংশ নেয়ায় ভারতীয় উদ্যোক্তাদের এদেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সম্ভাবনার নবদুয়ার উন্মোচিত হল বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে চমৎকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বিদ্যমান। এখন দু�পক্ষের ব্যবসায়িক সম্ভাবনাগুলোকে কাজে লাগিয়ে ব্যবসা-বাণিজ্যের সম্প্রসারণের মাধ্যমে আর্থ-সামাজিক সম্পর্কের উন্নয়ন ঘটাতে হবে।

এস আর রাও ভারতের উত্তর পূর্বঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে নিজস্ব পণ্য সরবরাহে বাংলাদেশের ভূ-খন্ড ব্যবহারের অনুমতির পাশাপাশি একাজে নৌপথ এবং রেলযোগাযোগ বাড়ানো গেলে ভালো হয় বলে মন্তব্য করেন। ভারতের উত্তর পূর্বঞ্চলীয় রাজ্যগুলো বাংলাদেশের রপ্তানি বৃদ্ধির অন্যতম একটি ক্ষেত্র হতে পারে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। এই বৈঠকে ভারত এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীদ্বয়ের সফর বিনিময় বাণিজ্য সম্পর্ক উণ�য়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে বলে উল্লেখ করা হয়। ডা. দীপু মনি ভারতে বাংলাদেশের শুল্কমুক্ত ৪৬টি টেক্সটাইল পণ্যের প্রবেশাধিকার প্রদান করায় ভারত সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বৃহৎ প্রতিবেশী রাষ্ট্র এবং উদীয়মান অর্থনৈতিক শক্তি হিসেবে বাংলাদেশের আরো কিছু পণ্যকে ভারতে শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করতে সহযোগিতার মাধ্যমে স্থানীয় ব্যবসায়ী সম্প্রদায়কে উৎসাহিত করার জন্য সফররত ভারতীয় ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের প্রতি আহবান জানান।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!