আজ || বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
শিরোনাম :
  হেমনগরে বর্ধিত সভায় দোয়াত কলম প্রতীকের কর্মী-সমর্থকদের ঢল       রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ডিজাইনকৃত পোশাক নিয়ে ফ্যাশন প্রদ‍‍র্শনী       গোপালপুরে দারোগার মাথা ফাটানোর ঘটনায় ১৬ জনকে জেলহাজতে প্রেরণ       গোপালপুরে দারোগার মাথা ফাটিয়েছে সন্ত্রাসীরা; গ্রেফতার ১০       গোপালপুরে প্রধানমন্ত্রীর ফেয়ার প্রাইজের চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগ       গোপালপুরে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোমেনের পদত্যাগ       উত্তর টাঙ্গাইল নূরানী মাদরাসার বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান       গোপালপুরে জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস উদযাপন       গোপালপুরে নানা আয়োজনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত       গোপালপুরে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় শিশু ও নারী নিহত    
 


চিকিৎসক সাজিয়া আফরিন ইভা হত্যার কথা স্বীকার করেছে ব্রাক ক্লিনিকের কর্মচারী আসামি ফয়সাল

চিকিৎসক সাজিয়া আফরিন ইভা হত্যার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে দক্ষিণখানের ব্রাক ক্লিনিকের কর্মচারী আসামি মো. ফয়সাল।

রোববার ঢাকার মহানগর হাকিম হাসিবুল হক তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আসামি ফয়সালকে আদালতে হাজির করে তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেওয়ার আবেদন করেন।

আদালত সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাতে ধর্ষণের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে ইভাকে হত্যা করে ফয়সাল।
গত বৃহস্পতিবার রাতে ক্লিনিকের তিন তলায় একটি কক্ষে থাকতেন ফয়সাল। একই তলায় আরেক পাশে চিকিৎসকদের বিশ্রামাগার।

ওই দিন কাজ শেষে বিশ্রামাগারে ছিলেন ইভা। রাত সাড়ে ১২টার দিকে ফয়সাল দরজায় করাঘাত করেন। দরজা খোলা মাত্রই তিনি কক্ষে ঢুকে ইভাকে ধর্ষণের চেষ্টা চালান। ইভা বাধা দিতে থাকলে ধস্তাধস্তি হয় এবং এক পর্যায়ে তাঁকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে নিজের কক্ষে চলে যান ফয়সাল।

আসামি ফয়সালকে শুক্রবার গভীর রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের শামু নানার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ইভা ২০০৮ সালে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন। তিন মাস আগে তিনি ব্র্যাকের ক্লিনিকে খন্ডকালীন চিকিৎসক হিসেবে চাকরি করতেন।
নিহত ইভার বাবা মনিরুল ইসলাম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আদালতে পুলিশের উপ-পরিদর্শক হিসেবে কর্মরত আছেন।

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!